রাজধানীতে আটক কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস

প্রকাশিত: ১১:০৭ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১, ২০২১ | আপডেট: ১১:০৭:পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১, ২০২১
রাজধানীতে আটক কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল স্থাপন নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের ঘটনায় আটক হয়েছেন রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী।

বুধবার সকালে গণমাধ্যমে পাঠানো র‍্যাবের সংক্ষিপ্ত এক বার্তায় জানানো হয়, আব্বাস আলীকে ঢাকা থেকে আটক করা হয়েছে।

রাজধানীর কাকরাইলের হোটেল রাজমনি ঈশা খাঁ থেকে তাকে আটক করা হয়।

কিছুদিন আগে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন নিয়ে আব্বাস আলী বিতর্কিত মন্তব্য করেন। এ সংক্রান্ত একটি অডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া অডিওর কণ্ঠ নিজের বলে স্বীকার করেছেন আব্বাস আলী।

অডিও ছড়িয়ে পড়ার পর আব্বাসের বিরুদ্ধে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ১৩, ১৪ ও ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের তিন কাউন্সিলর ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে নগরের তিন থানায় মামলা করেন।

ইতিমধ্যে আব্বাস আলীকে অপসারণে অনাস্থা এনেছেন কাউন্সিলররা। এ অনাস্থা প্রস্তাবসংবলিত অপসারণের আবেদনপত্র জেলা প্রশাসকের কাছে জমা দিয়েছেন তারা।

গত শুক্রবার ফেইসবুক লাইভে এসে আব্বাস আলী বলেন, স্থানীয় একটি মাদ্রাসার বড় হুজুরের পরামর্শে প্রভাবিত হয়ে তিনি ম্যুরাল না রাখার বিষয়টি কথাচ্ছলে বলেছিলেন।

আব্বাস আলী রাজশাহীর পবা উপজেলার কাটাখালী পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক। তিনি আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে নির্বাচিত হয়ে টানা দুই মেয়াদে মেয়রের দায়িত্ব আছেন।

সপ্তাহ খানেক আগে দলীয় কার্যালয়ে পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের জরুরি বৈঠকে মেয়র আব্বাসকে পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়কের পদ থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পাশাপাশি তাকে কেন স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না তার কারণ দর্শাতে তিন দিনের সময় দেওয়া হয়।